আজ 21 জানুয়ারি সুশান্ত সিং রাজপুত এর জন্মদিন, আসুন জেনে নিই তার জীবনে কিছু অজানা, জানা কথা

WhatsApp Group Join Now
Instagram Profile Join Now
YouTube Channel Subscribe

Smart Update24,By Syed Mosharaf Hossain


আজ 21 জানুয়ারি সুশান্ত সিং রাজপুত এর জন্মদিন, আসুন জেনে নিই তার জীবনে কিছু অজানা, জানা কথা:-

দেশের আবেগের নাম Sushant Singh Sajput । 2020 সালে তার মৃত্যু রহস্য নিয়ে তোলপাড় চলেছিল গোটা দেশে। আজ সেই বহু প্রতিভাবান অভিনেতা আমাদের সাথে নেই কিন্তু তার কাজ, তার প্রতিভা, তার প্রাণোচ্ছল হাসিমুখ আজও সকলের মনে গাঁথা আছে। আজ এই অভিনেতার জন্মদিন। তাই তার এই বিশেষ দিনে তাকে আরও একবার মনে করছে গোটা সোশ্যাল মিডিয়া। আজ সকাল থেকেই সুশান্ত সিং রাজপুত এর বিভিন্ন ভিডিও, ছবি পোস্ট করছেন তার সকল অনুগামীরা। তার এই বিশেষ দিনে তার আত্মার শান্তি কামনা করছেন সকলে।


সুশান্ত সিং রাজপুত এই নামটির সঙ্গে আমরা ভারতবাসী সঙ্গে পুরো বিশ্ব খুব ভালোভাবে অবগত। তিনি একজন খুব ভালো ডান্সার, অভিনেতা ছিলেন,। তিনি জনপ্রিয় বলিউড ফিল্ম অভিনেতা, টেলিভিশন অভিনেতা ছিলেন, তিনি তার সামাজিক কর্মকান্ডের ও হাসি খুশি মানসিকতার জন্য খুব পরিচিত।
সুশান্ত সিং রাজপুত বলিউড ফিল্ম জগতে তার উজ্জল স্থান নিজের পরিশ্রম যোগ্যতার বলে করেছিলেন, অন্য অধিকাংশ হিরো ও হিরোইনের মত বাবা কিংবা মায়ের নামে প্রচার পাননি।

Google News View Now

নাম: সুশান্ত সিং রাজপুত
জন্ম: 21 জানুয়ারী 1986
পিতা: কে কে সিং
মাতা: উষা নাদকার্নি
পেশা: ড্যান্স, টিভি ও বলিউড অভিনয়,
ক্যরিয়ার: 2008 থেকে 2020 সাল
মৃত্যু: আত্মহত্যা, বান্দ্রা, মুম্বাই


অত্যন্ত আত্মবিশ্বাসী পরিশ্রমী অভিনেতা কোন চরিত্রে কাজ করার পূর্বে সেটিকে ভালকরে শিখে তারপরে অভিনয় করায় বিশ্বাসী ছিলেন, তিনি বলতেন কোন কাজ করার পূর্বে সেটিকে শিখে নাও।
তার একটি ফিল্ম Raabta 2017 সালে মুক্তি পায় এই সিনেমার একটি তলোয়ার চালোনার অভিনয় থাকায় তিনি তলোয়ার চালনা শিক্ষার জন্য ব্যাংককে একমাস প্রশিক্ষণ নেন।
সুসান সিং তার নিজের কঠোর পরিশ্রম করে তার প্রতিটা ফিল্মে নিজের জীবনের বেস্ট চরিত্র অভিনয় করে গেছেন। তিনি পরিশ্রম করে নিজের সাফল্য এনে দেয়াছিলো পারিবারিক ল্যাম লাইট নয়।


প্রথম জীবন: সুশান্ত সিং প্রাথমিক শিক্ষা জীবন বিহারের পাটনা শহরে শুরু করেন, অত্যন্ত মেধাবী ছাত্র ছিলেন সুশান্ত সিং রাজপুত। সুসান সিং নিজের জীবনে অনেক কষ্ট করেছেন এবং অনেক দুঃখ সহ্য করেছেন । তার সবচেয়ে বড় দুঃখ হলো যখন তার মা হঠাৎ করে অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং কিছুদিন পর তার মা মারা যান।  তার মায়ের মৃত্যুর পর তার পারিবারিক জীবনে অনেক রকম পরিবর্তন আছে পরবর্তীকালে তিনি দিল্লিতে চলে আসেন। মেধাবী ছাত্র হিসেবে তিনি কলেজে অনেক পুরস্কার অর্জন করেন, পরবর্তীতে তিনি ইঞ্জিনিয়ারিং পড়া শুরু করেন কিন্তু চার বছরের শিক্ষা জীবনের তৃতীয় বছরেই তিনি কলেজ ড্রপ আউট করেন।


এর পিছনের বড় কারণ ছিল তার ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ায় মন না লাগা, কেননা সেইসময় তিনি ডান্সের প্রতি দুর্বল হয়ে পড়েন এবং প্রচুর সময় দেয়ার কারণে তার রেজাল্ট খারাপ হতে থাকে।
দিল্লিতে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার সময় নামকরা ড্যান্স গুরুপ ব্যারি ড্যান্স এর সাথে তার যোগাযোগ হয় সুশান্ত সিং এতটাই ভাল ড্যান্স করতো যে ব্যারি ড্যান্স গুরুপ তাকে পার্মানেন্ট ডান্স মেম্বার করে দেয়।
ব্যারি ড্যান্স এর সাথে তিনি ডান্স কোরিওগ্রাফার হয়ে বেশ কিছু দেশি ও আন্তর্জাতিক ফিল্ম অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে গুরুপ ডান্স করেছেন।

WhatsApp Group Join Now
Google News View Now

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here