HomeGovt Schemesকম টাকা বাজেটে শুরু করতে পারবেন যে সব ব্যবসা

কম টাকা বাজেটে শুরু করতে পারবেন যে সব ব্যবসা

WhatsApp Group Join Now
Instagram Profile Join Now
YouTube Channel Subscribe

ব্যবসা করার ইচ্ছা থাকলেও ভাবছেন যে, আপনার ব্যবসা করার মতো প্রচুর টাকা নেই। কোনও চিন্তা করবেন না। আপনার জন্য অনেক মার্কেটিং কৌশল আছে যা ব্যবহার করে আপনি ক্ষুদ্র ব্যবসা শুরু করতে পারবেন। আপনি যদি সঠিক প্ল্যান এবং সঠিকভাবে আপনার পরিশ্রমকে কাজে লাগাতে পারেন, তাহলে আপনিই ব্যবসায় সাফল্য পাবেন।

এখন আপনার এই অল্প পুঁজিতে আপনি কী ধরনের ব্যবসা শুরু করতে পারবেন তার জন্য রইলো কিছু টিপস–


শিক্ষামূলক ভিডিও তৈরি করুন:

ভিডিও কন্টেন্ট সত্যিই মূল্যবান এবং আপনি যে কোনও বিষয়ের উপর শিক্ষামূলক ভিডিও ইউটিউবে আপলোড করতে পারেন। বর্তমানে অনেকেই এই ধরনের ব্যবসা করছে।


অনলাইন ট্যুরিজম:

আমাদের দেশের ভ্রমণ উপযোগী বিভিন্ন স্থানের ডাটা সংগ্রহ করে, ভালো ছবি তুলে ওয়েবসাইট তৈরি করা। ইন্টারনেটের মাধ্যমে বাইরের বিশ্বের কাছে তা তুলে ধরা। পাশাপাশি বিভিন্ন হোটেল এবং টু্যরিজম কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করা। এক কথায় নিজের ফিজিক্যাল এক্সিস্টেন্স না থেকেও মিডলম্যান হিসেবে কাজ করা।


প্যাকেজিংয়ের ব্যবসা:

গ্রাম বা শহর সব জায়গার শাড়ি, জুতো, মিষ্টি, খাবার প্রভৃতির দোকানে প্যাকেট দরকার হয়। ভালো প্যাকেজিং ছাড়া ব্যবসা-বাণিজ্যের উন্নতি সম্ভব হয় না। উন্নতমানের প্যাকেজিং বাক্স তৈরি করে দেশীয় চাহিদা মিটিয়ে বিদেশেও রপ্তানি করা যেতে পারে। বিভিন্ন ধরনের পণ্যসামগ্রী বাজারজাত এবং আকর্ষণীয়ভাবে উপস্থাপন করার জন্য বিভিন্ন ধরনের প্যাকেট ব্যবহৃত হয়। যেমন– শাড়ির বাক্স, জুতোর বাক্স, মিষ্টির বাক্স, বিরিয়ানীর বাক্স ইত্যাদি।


টেলারিং বা দর্জির কাজ:

আধুনিক যুগের সাথে তাল মিলিয়ে চলার জন্য নারী-পুরুষ উভয়েই বিভিন্ন ডিজাইনের কাপড় পরার প্রতি আগ্রহী। তাই পোশাক কেনার পাশাপাশি তারা দর্জির কাছ থেকে নিজের ইচ্ছা অনুযায়ী মাপ ও ডিজাইন দিয়ে বিভিন্ন পোশাক তৈরি করে নেয়। এ কারণে কাপড় সেলাই বা দর্জির চাহিদা সব সময়ই থাকে। কাপড় সেলাই শুরুর আগে দক্ষতা অর্জন করা অবশ্যই প্রয়োজন। তাই কাপড় কাটা ও সেলাইয়ে দক্ষতা অর্জনের জন্য প্রশিক্ষণ নিতে হবে।

Google News View Now

ছবি বাঁধাইয়ের ব্যবসা:

ছবি বাঁধিয়ে রাখার মূল উদ্দেশ্য হল দৃষ্টি আকর্ষণ, গৃহসজ্জা ও দীর্ঘদিন সংরক্ষণ। ছবি বাঁধানো এখন একটি শিল্পের অন্তর্ভুক্ত হয়ে গেছে। সারাদেশে অনেক মানুষ এই পেশার সাথে যুক্ত আছে। মানুষ দিন দিন তার গৃহসজ্জার প্রতি সচেতন হয়ে উঠছে। ফলে এর অংশ হিসাবে বাড়ছে ছবি বাঁধাইয়ের কাজ। বিভিন্ন ডিজাইন ও রঙের ফ্রেমে এখন ছবি বাঁধাই করা হচ্ছে।


ওয়েবসাইট তৈরির ব্যবসা:

বর্তমানে গ্রাম, মফস্সল ও বড় শহরগুলোর আশপাশে অনেক সরকারি ও বেসরকারি কলেজ রয়েছে। প্রতিষ্ঠিত হচ্ছে আরও নতুন বেসরকারি কলেজ যাদের নিজস্ব কোনও ওয়েবসাইট নেই। যাঁরা এই কাজে দক্ষ তারা ওয়েবসাইট তৈরির কাজে নেমে পড়তে পারেন। কলেজ কর্তৃপক্ষও নিশ্চয় এটা সাদরে গ্রহণ করবেন।


স্টেশনারি দোকান:

বইপত্র, খাতা-কলমের চাহিদা দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। দেশের উন্নতির সাথে সাথে বাড়ছে অফিস আদালত, ব্যবসা-বাণিজ্য এবং এর সংশ্লিষ্ট দপ্তরগুলোও। এসব প্রতিষ্ঠানে রেজিস্টার খাতা, পেনসিল, কলম, ফাইল ইত্যাদির প্রয়োজন হয়। স্টেশনারিতে এই সব প্রয়োজনীয় খাতা, কলম, পেনসিল, স্কেল ইত্যাদি পাওয়া যায়। এসব উপকরণের চাহিদা সব সময়ই থাকে।


আপনি ক্ষুদ্র ব্যবসা নিয়ে শুরু করলেন এখন আপনার ব্যবসার সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ কোনও ব্যবসা যদি আপনার পাশের কোনও ব্যক্তি করে তাহলে আপনি তাদের সাথে অংশীদারের ভিত্তিতে কাজ করতে পারেন। তাহলে আপনার কোনও ক্লায়েন্ট হাতছাড়া হবে না। আপনি আপনার ব্যবসার যদি একজন নিয়মিত ক্লায়েন্ট খুঁজে পান তাহলে আপনার ব্যবসা দ্রুত এগিয়ে যাবে।

আপনাকে ব্যবসার জন্য উপযুক্ত জায়গা নির্ধারণ করতে হবে। আপনি কী ব্যবসা করতে যাচ্ছেন, ওই ব্যবসার জন্য আপনার আশে পাশের পরিবেশ পারফেক্ট কিনা। যেমন সব খাবারের দোকানের মধ্যে কেউ যদি চশমার দোকান নিয়ে বসে, তাহলে সে ব্যবসায় খুব একটা সুবিধে করতে পারবে না।

এরকম আপনি আপনার ব্যবসার জন্য উপযুক্ত জায়গা এবং উপযুক্ত পরিবেশ নির্ধারণ করুন। যেন আপনার কাস্টমার এবং আপনার কর্মকর্তা কর্মচারীরা কাজের জন্য উপযুক্ত পরিবেশ পায়। আপনি ইচ্ছে করলে এটার জন্য আপনার ব্যবসা সম্পর্কিত ব্যক্তিদের সাথে পরামর্শ করে নিতে পারেন।

WhatsApp Group Join Now
Google News View Now
RELATED ARTICLES

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisment -

Most Popular