Lithium-Ion Battery কীভাবে কাজ করে ?পড়ুন বিস্তারিত–

Lithium-Ion Battery কীভাবে কাজ করে ?পড়ুন বিস্তারিত: দৈনন্দিন জীবনে আমরা যত Electronics Gadgets ব্যবহার করি সবেই আমরা ব্যাটারি ব্যাটারি ব্যবহার করি । সাধারণত ব্যাটারি অনেক ধরনের হয়  সেই সব ব্যাটারি গুলির মধ্যে একটা ব্যাটারি হল Lithium-Ion Battery । আজ আমরা এই Lithium-Ion Battery কিভাবে কাজ করে সেটা নিয়ে-

বিভিন্ন ধরনের Electronics Gadgets এ  আমরা বিভিন্ন ধরনের ব্যাটারি ব্যবহার করে থাকি । প্রকৃতপক্ষে, এই ব্যাটারি  বিশ্বব্যাপী লক্ষ লক্ষ মানুষের চাহিদা মেটাতে প্রচুর শক্তি সরবরাহ করে।  এগুলি ল্যাপটপ, মোবাইল ফোন, বৈদ্যুতিন গাড়ি এবং অন্যান্য অসংখ্য সরঞ্জাম এবং ডিভাইসে  ব্যবহার  করে থাকি। এই কারণেই এই প্রযুক্তিটি জনপ্রিয়তার সাথে বাড়ছে। এই ইউনিটগুলি হালকা ওজনের, উচ্চ শক্তি সরবরাহ করে এবং কয়েকবার রিচার্জ করা যায়। আমরা এই ইউনিটগুলি কীভাবে  কাজ করে সেটা নিয়ে জানবো

সাধারণ ধারণা ব্যাটারি: –


বিশ্বের প্রথমে যখন ব্যাটারি আবিষ্কার হয়েছিল তখন দুটি ভিন্ন ধরনের ধাতু নিয়ে সেই ধাতুর মাঝে একটি ভেজা লবণের পেপার ব্যবহার করা হয়েছিল এটি ছিল বিশ্বের প্রথম ব্যাটারি। অর্থাৎ দুটি ভিন্ন ধরনের ধাতুর মধ্যে যদি আমরা লবণের পেপার ব্যবহার করি তাহলে সেটি একটি ব্যাটারি। বর্তমানে  একটি ব্যাটারিতে বেশ কয়েকটি উপাদান থাকে যেমন ইলেক্ট্রোলাইট, বিভাজক, ক্যাথোড, আনোড । আনোড এবং ক্যাথোড লিথিয়াম সংরক্ষণে সহায়তা করে। অন্যদিকে, ইলেক্ট্রোলাইটগুলি বিভাজকের মাধ্যমে ইতিবাচক চার্জ আয়নগুলি বহন করার জন্য দায়বদ্ধ।এই আয়াতগুলি চলাফেরা করার জন্যই কারেন্ট ফ্লও হয়

সাধারণ ব্যাটারির সমস্যা!:- 


সহজ বাংলায় ব্যাটারি হচ্ছে এমন একটি ধাতব বস্তু যার ভেতর রাসায়নিক এক্সপেরিমেন্ট সম্পাদিত হয়। ব্যাটারির দুই প্রান্ত কোনোকিছুতে সংযোগ দিলে (উদাহরণস্বরূপ একটা টর্চলাইট) শুরু হয় বিক্রিয়া। ব্যাটারির ভেতরের বিক্রিয়া ধীরে কিন্তু সুনিয়ন্ত্রিত উপায়ে অন্য আরেকটা রাসায়নিক পদার্থ তৈরি করে এবং এগুলো চার্জের একটা ধারা তৈরি করে৷ ধনাত্মক চার্জে চার্জিত হচ্ছে আয়ন এবং ঋণাত্মক চার্জে চার্জিত কণা ইলেকট্রন। আয়ন ব্যাটারিতে যায় এবং ইলেকট্রন যায় সেই বর্তনীতে যেটার সাথে ব্যাটারি যুক্ত। তড়িৎশক্তি দান করে এবং টর্চলাইট জ্বলে উঠে। এধরনের বিক্রিয়া একবারই সংঘটিত হতে পারে যার কারণে ব্যাটারিকে পুনরায় চার্জ দেয়া যায়না। এই সমস্যা সমাধানের জন্য লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি আবিষ্কার করা হয়েছে

কীভাবে লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি কাজ করে?:-


লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি চার্জ হয় তখন লিথিয়াম কোবাল্ট অক্সাইড, তথা ধনাত্মক তড়িৎদ্বার তাঁর কিছুটা লিথিয়াম আয়ন ছেড়ে দেয় যা তড়িৎবিশ্লেষ্য পদার্থের মধ্য দিয়ে গিয়ে গ্রাফাইট তড়িৎদ্বারে জমা হয়। এই উপায়ে ব্যাটারি চার্জ জমা করে। আবার ডিসচার্জিং এর বেলায় লিথিয়াম আয়ন ধনাত্মক তড়িৎদ্বারে ফিরে যায় এবং ব্যাটারিকে কাজ করার শক্তি প্রদান করে।

উভয় ক্ষেত্রেই ইলেকট্রন আয়নের বিপরীতে গমন করে এবং তড়িৎবিশ্লেষ্য পদার্থের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়না কারণ এটা একটা অপরিবাহী হিসাবে কাজ করে। আয়নের চলাচল (তড়িৎবিশ্লেষ্য পদার্থের মধ্য দিয়ে) এবং ইলেকট্রনের চলাচল( বহিবর্তনী দিয়ে, আয়নের বিপরীতে) দুটোই অন্তর্বর্তী সম্পর্কযুক্ত। একটার প্রবাহ বন্ধ হলে অন্যটার প্রবাহেও বিঘ্ন ঘটবে।

যদি আয়ন প্রবাহ বন্ধ হয়ে যায় তাহলে বহিঃবর্তনীতে ইলেকট্রনের প্রবাহ বন্ধ হয়ে যাবে এবং ফলাফলস্বরূপ সম্পূর্ণভাবে ব্যাটারি ডিসচার্জড হবে। লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারিতে কিছু Built in বৈদ্যুতিক কন্ট্রোলার থাকে। যার ফলে কখনো অতিরিক্ত চার্জ গ্রহণ করেনা বা গরম হয়ে যায় না।

লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারির অংশগুলি কী কী?:- 


একটি ব্যাটারি বেশ কয়েকটি স্বতন্ত্র কোষ দ্বারা গঠিত যা একে অপরের সাথে সংযুক্ত থাকে। প্রতিটি কোষে তিনটি প্রধান অংশ থাকে: একটি positive  electrode (a cathode), একটি negative electrode (an anode) এবং একটি liquid electrolyte.

 

লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি রিচার্জিং কীভাবে কাজ করে?


যখন আপনার মোবাইল ফোনে লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি এটি চালিত হয়, তখন positively charged lithium ions (Li+)  negative anode থেকে positive cathode চলে আসে। তারা positive electrodeপৌঁছানোর আগ পর্যন্ত বৈদ্যুতিন পদক্ষেপের মাধ্যমে এটি করে। সেখানে তারা জমা হয়।

অন্যদিকে, বৈদ্যুতিনগুলি আনোড থেকে ক্যাথোডে চলে যায়।আপনি যখন লিথিয়াম-আয়ন ব্যাটারি চার্জ করেন তখন ঠিক বিপরীত প্রক্রিয়াটি ঘটে। লিথিয়াম আয়নগুলি ক্যাথোড থেকে অ্যানোডে ফিরে যায়। বৈদ্যুতিনগুলি আনোড থেকে ক্যাথোডে চলে যায়

Lithium-Ion Battery
Lithium-Ion Battery

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles