James Webb Space Telescope 2022 | নাসার নতুন টেলিস্কোপ আশ্চর্যজনক, ছবিতে ‘তারকার’ মৃত্যু, গ্যালাক্সির নাচ

James Webb Space Telescope 2022: আমেরিকার মহাকাশ সংস্থা নাসার সুপার পাওয়ারফুল টেলিস্কোপ জেমস ওয়েব অসীম মহাকাশে লুকিয়ে থাকা অনেক বিস্ময়কর রহস্যের পর্দা সরিয়ে দিয়েছে। মহাকাশের গভীরতম চিত্র প্রকাশ করার পরে, নাসা জেমস ওয়েব টেলিস্কোপ থেকে নেওয়া বিশদ চিত্র প্রকাশ করেছে। নাসা বলেছে, এটি জ্যোতির্বিদ্যার জগতে এক নতুন যুগের সূচনা।

জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা এখন এই নাসার ছবি এবং অত্যাধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে আমাদের ছায়াপথের গ্রহের বায়ুমণ্ডল অধ্যয়ন করতে সক্ষম হবেন। এ থেকে জানা যাবে এই গ্রহগুলোতে প্রাণের চিহ্ন আছে কি না।

ইউরোপীয় ও কানাডিয়ান স্পেস এজেন্সির সহায়তায় এই ছবিগুলো প্রকাশ করেছে নাসা। মঙ্গলবার নাসা প্রকাশিত চিত্রগুলির মধ্যে একটিতে একটি মৃত নক্ষত্রকে ঘিরে ধুলোর মেঘ এবং আলোর রশ্মি দেখা যায়। এটিকে সাউদার্ন রিং নেবুলা বলা হয় যা পৃথিবী থেকে 2500 আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত।

আরেকটি চিত্র স্টিফেন কুইন্টেট নামে একটি গ্যালাক্সির ক্লাস্টার দেখায়। সাউদার্ন রিং নীহারিকা সম্পর্কে নাসা বলেছে, ‘এই দৃশ্যের কেন্দ্রে রয়েছে নিভৃত নক্ষত্র, যেটি হাজার হাজার বছর ধরে চারদিক থেকে গ্যাস ও ধূলিকণার রিং বের করে আসছে।’

দশ বিলিয়ন ডলারের টেলিস্কোপ

নাসার প্রশাসক বিল নেলসন বলেছেন, “প্রতিটি চিত্র একটি নতুন আবিষ্কার এবং প্রতিটি মানবতাকে এমন দৃশ্য প্রদান করবে যা আমরা আগে কখনো দেখিনি।” সোমবার হোয়াইট হাউসে একটি ইভেন্টে প্রকাশিত প্রথম ছবি ‘ডিপ ফিল্ড’-এ বেশ কয়েকটি তারা এবং দৈত্যাকার ছায়াপথ দেখা যায়।

জো বিডেন এটিকে আশ্চর্যজনক বলে অভিহিত করেছেন এবং বলেছেন যে এই ছবিটি হাজার হাজার গ্যালাক্সিতে পূর্ণ। তিনি এই টেলিস্কোপকে মানবতার অন্যতম মহান প্রকৌশল অর্জন বলে বর্ণনা করেছেন। নাসার প্রশাসক বিল নেলসন গত মাসে ঘোষণা করেছিলেন যে আমরা মানবতাকে মহাবিশ্বের প্রতি একটি নতুন দৃষ্টিভঙ্গি দিচ্ছি, এমন একটি দৃশ্য যা আমরা আগে কখনও দেখিনি।

Read More: Vidyasaarathi Scholarship 2022 | অনলাইনে আবেদন করুন, 50000 টাকা পর্যন্ত স্কলারশিপ

জেমস ওয়েব টেলিস্কোপ ডিজাইন

জেমস ওয়েব টেলিস্কোপটি বিশেষভাবে ইনফ্রারেডে স্থান পর্যবেক্ষণ করার জন্য ডিজাইন করা হয়েছিল। এই আলোগুলি দীর্ঘ দূরত্বে দেখতে পারে যা আমাদের চোখ দেখতে পারে না। এর মাধ্যমে মানুষ এখন মহাকাশে হাবলের চেয়েও বেশি দূরত্ব দেখতে পাবে।

এছাড়াও 13.5 বিলিয়ন বছর আগে ঘটে যাওয়া ঘটনাগুলি সনাক্ত করতে পারে। এছাড়াও, জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা আমাদের ছায়াপথের অভ্যন্তরে থাকা গ্রহগুলির বায়ুমণ্ডল অনুসন্ধানের জন্য অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারেন যাতে জীবনের সম্ভাবনা সনাক্ত করা যায়।

James Webb Space Telescope: আরও অনেক আবিষ্কার আসতে চলেছে

জেমস ওয়েবের একজন ব্রিটিশ গবেষক অধ্যাপক গিলিয়ান রাইট বলেন, প্রাথমিক ছবিগুলো শুধুমাত্র নমুনা এবং ভবিষ্যতে আরও ভালো ছবি আসবে। তিনি বিবিসিকে বলেন, ‘যখনই আপনি নতুনভাবে আকাশের দিকে তাকান, আপনি এমনভাবে দেখেন যা আমরা আশা করি না।

বাস্তবতা হল এই নতুন ডেটা খুব ভালো এবং এগুলোর মান খুবই ভালো। কয়েক ঘণ্টা তদন্তের পরই এগুলো অর্জিত হয়েছে। এটি থেকে দেখা যাচ্ছে যে বিশাল আবিষ্কারগুলি আমাদের জন্য অপেক্ষা করছে।

Know More: Link

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Latest Articles