Agneepath Scheme 2022 | সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনী এবং নৌবাহিনীতে নিয়োগ, বেতন

Agneepath Scheme 2022: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বে অগ্নিপথ প্রকল্পটি নিরাপত্তা সংক্রান্ত ক্যাবিনেট কমিটি (CCS) অনুমোদন করেছে। মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত সিসিএস বৈঠকের সিদ্ধান্ত প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং এবং প্রতিরক্ষা সচিব সহ সেনাবাহিনীর তিনটি শাখার প্রধানরা মিডিয়ার কাছে উপস্থাপন করেছেন। সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, আগামী ৯০ দিনের মধ্যে সেনাবাহিনীতে দেশের অগ্নিনির্বাপক কর্মী নিয়োগ শুরু হবে।

দেশের সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনী এবং নৌবাহিনীতে অগ্নিনির্বাপক নিয়োগের জন্য অগ্নিপথ প্রকল্পটি প্রতিরক্ষা মন্ত্রক ঘোষণা করেছে। মঙ্গলবার, দিল্লির বিজ্ঞান ভবনে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের উপস্থিতিতে, তিনটি পরিষেবার প্রধানরা এই প্রকল্প ঘোষণা করেন এবং প্রয়োজনীয় তথ্য দেন।

Agneepath Scheme 2022 (অগ্নিপথ স্কিম) :

স্কিমের বর্ণনা দিতে গিয়ে লেফটেন্যান্ট জেনারেল অনিল পুরি বলেছিলেন যে এই স্কিমটি সেনাবাহিনীর গড় বয়স কমিয়ে দেবে। এখন পর্যন্ত এই বয়স ছিল 32 বছর, যা 24 থেকে 26 বছরে নেমে আসবে। অগ্নিপথ স্কিমের মাধ্যমে যুবকরা কীভাবে কেরিয়ার পাবে সে সম্পর্কেও সরকার বিস্তারিত তথ্য দিয়েছে।
সেনাবাহিনীতে সৈনিকদের জন্য বয়সসীমা:

সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ পান্ডের মতে, অগ্নিপথ প্রকল্পের অধীনে, সশস্ত্র বাহিনীর যুবকদের প্রোফাইল রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে, যা দেশের জনসংখ্যার প্রোফাইল। এর জন্য সাড়ে ১৭ থেকে ২১ বছর বয়সী যুবকরা এই অগ্নিবীর প্রকল্পের জন্য যোগ্য হবেন। এমন পরিস্থিতিতে আগামী সময়ে সেনাবাহিনীর গড় বয়স হবে ২৬ বছর। বর্তমানে সেনাবাহিনীতে সৈনিকদের গড় বয়স ৩২ বছর।

Read More: পোস্ট অফিসে কর্মী নিয়োগ (India Post) | বেতন-19900 টাকা

আসুন জেনে নেওয়া যাক, অগ্নিপথ স্কিমের 10টি জিনিস:

1. এই প্রকল্পের অধীনে, ছেলে এবং মেয়ে উভয়ই তিনটি পরিষেবাতে নিয়োগের সুযোগ পাবে। অগ্নিবীরের জন্য আবেদন করার জন্য বয়স 17 বছর 6 মাস থেকে 21 বছরের মধ্যে হতে হবে। সামরিক কর্মকর্তারা বলেছেন, এর মাধ্যমে যুবকরা দশম বা দ্বাদশ পাস করলেই ভালো ক্যারিয়ার পাবে। তাদের আরও ভাল বেতন, প্রশিক্ষণ এবং ভবিষ্যতের রাস্তা থাকবে।

2. অগ্নিবীরদের জন্য চিকিৎসা এবং শারীরিক সুস্থতার নিয়ম একই থাকবে, যা এখন পর্যন্ত অন্যান্য সৈনিকদের জন্য ছিল। 10 তম এবং 12 তম পাস যুবকদের অগ্নিবীর হিসাবে বিভিন্ন পদে নিয়োগের সুযোগ দেওয়া হবে।

3. অগ্নিবীররা প্রথম বছরে বার্ষিক 4.76 লক্ষ টাকার প্যাকেজ পাবেন৷ চতুর্থ বছরের শেষ নাগাদ এই পরিমাণ বেড়ে দাঁড়াবে 6.92 লক্ষ টাকা।

4. পরিষেবা শেষে 11.7 লক্ষ টাকার একটি প্যাকেজ দেওয়া হবে৷ এ ছাড়া চাকরিরত অবস্থায় শহীদ হলে পরিবারের সদস্যরা পাবেন ১ কোটি টাকা। অন্যদিকে, পরিষেবা চলাকালীন অক্ষমতা বা গুরুতর আঘাতের ক্ষেত্রে, 44 লাখ টাকার কভারেজ দেওয়া হবে।

5. পরিষেবা তহবিল প্যাকেজের উপর কোন কর আরোপ করা হবে না।

6. যে সৈন্যরা অগ্নিবীর হিসাবে তাদের 4 বছরের মেয়াদ শেষ করবে তারা অন্যান্য প্রতিষ্ঠানে চাকরির সুযোগ পাবে এবং তাদেরও অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। এছাড়া ২৫ শতাংশ অগ্নিবীরকে সেনাবাহিনীতে দীর্ঘমেয়াদি চাকরির জন্যও নির্বাচিত করা হবে।

7. অগ্নিবীরদের প্রথম নিয়োগ 90 দিনের মধ্যে করা হবে।

8. এই বছর প্রথম ব্যাচে মোট 46,000 অগ্নিবীর নিয়োগ করা হবে। আগামী বছরগুলোতে এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

9. অগ্নিবীর নিয়োগের জন্য সেনা সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে গিয়ে তিন বাহিনীর ক্যাম্পাস ইন্টারভিউও নেওয়া হবে। বিশেষ করে আইটিআই করা যুবকরা বিশেষ সুযোগ পাবেন।

10. ‘অগ্নিবীর দক্ষতা সার্টিফিকেট’ জারি করা হবে যাতে তাদের অবসর নেওয়ার পরেও অন্য চাকরি পাওয়া সহজ হয়।

Official Link: Here

Swastika Paul
Swastika Paul
Hi, I am Swastika Paul, popularly known as Mun in my friends’ circle. I am a writer, author ,educationist and an Engineering student . I enjoy writing things that are on popular science, applied mathematics, environment, history, invention news , modern technology culture and society in Bengali in order to popularize science among readers in the regional language.

Related Articles

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

- Advertisement -

Latest Articles